Home / বাংলাদেশ / সারাদেশ / ঝিনাইদহ প্রতিদিন / অবৈধ গর্ভপাতের মূলহোতা রিনা আটক

অবৈধ গর্ভপাতের মূলহোতা রিনা আটক

ক্রাইম প্রতিদিন, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) : ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে অবৈধ গর্ভপাতের মূলহোতা কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়া রিনা পারভিন (৩৫) কে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার সন্ধায় নিজ বাসা থেকে (হাসপাতাল কোয়ার্টার) তাকে আটক করা হয়। এর আগে তার এই কাজে সহযোগিতার জন্য রিনার গাড়ী চালক উপজেলার জগনাথপুর গ্রামের মইদুল ইসলামের ছেলে নাহিদ হাসার রকি (২৩) কে আটক করে পুলিশ।

কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুল আলম জানান, কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়া রিনা পারভিন দীর্ঘদিন যাবত এই হাসপাতালে নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে অবৈধভাবে গর্ভপাত করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল শনিবার শহরের নওদা গ্রামের আক্কাস আলী দম্পতির সরলতার সুযোগ ও ভয়-ভীতি দেখিয়ে বাচ্চা বেঁচে নেয় বলে সাত মাস বয়সের নবজাতককে অবৈধভাবে গর্ভপাত করে।

এবং বাচ্চাটিকে শপিং ব্যাগে করে হাসপাতালের পরিত্যাক্ত ভবনের পাশে ফেলে রাখে। পরে চা ব্যবসায়ী মনু মিয়ার স্ত্রী নার্গিস বেগম নবজাতকসহ শপিং ব্যাগটি দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপেক্সে নেয়ে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নবজাতকটি মারা যায়।

নবজাতকের বাবা আক্কাস আলীকে জিজ্ঞাসাবাদে সে রিনার অবৈধভাবে গর্ভপাতের বিস্তারিত ঘটনা পুলিশকে জানায়। এঘটনায় তার বিরুদ্ধে নর হত্যার মামলা দায়ের হয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কালিগঞ্জ উপজেলার মধুগঞ্জের ঢাকালে পাড়ার মৃত আজগর আলীর মেয়ে কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আয়া রিনা পারভিনকে আটক করে।

এদিকে রিনা আটকের পর এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, আয়া রিনা পারভিন অবৈধ গর্ভপাত করে সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। এঘটনায় তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

কোটচাঁদপুর স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুর রশিদ জানান, রিনার বিরুদ্ধে অবৈধ গর্ভপাতের অভিযোগ পেয়েছি। তার কর্মকান্ডের বিষয়ে আমরা তদন্ত কমিটি গঠন করে পরে ব্যবস্থা নিব।