সড়ক পথে নিরাপদ কোথায়?

, ইকবাল হোসেন : ছোট ছোট রাস্তা থেকে মহাসড়ক, রিকশাযাত্রী থেকে বাসযাত্রী, কেউ কোথাও নিরাপদ নয়। নিরাপদ শব্দটা এখন কোথাও নেই, অন্তত সড়কে নেই। এই কথাটি বলার জন্য কোনও বিশেষজ্ঞ হতে হয় না।

একজন সাধারণ মানুষই বলতে পারে সড়কে আমাদের নিরাপদ নেই। যাত্রী কল্যাণ সমীতির তথ্যমতে পত্রিকায় িত হয় ২০১৮ সালে ৫৫১৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭২২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এসব দুর্ঘটনায় হয়েছেন আরও অন্তত ১৫ ৪৬৬ জন। মৃত্যুর সংখ্যা শুনতে শুনতে এখন আমাদের চোখ, কান, শরীর সয়ে গেছে। আসলেই কতটা অসহায় আমরা এই সড়ক-মহাসড়কের কাছে,তা দুর্ঘটনার এক তথ্যেতে স্পষ্ট।

এবারের ঈদযাত্রায় ২০৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২২৪ জন প্রাণ হারিয়েছে। আহত হয়েছেন ৮৬৬জন। অপরদিকে সড়ক, রেল ও নৌ-পথে সম্মিলিতভাবে ২৪৪টি দুর্ঘটনায় ২৫৩ জন নিহত ও ৯০৮ জন আহত হয়েছেেন।

এতে বলা হয়, ঈদযাত্রা শুরুর দিন অর্থ্যাৎ ৬ আগস্ট থেকে ঈদ শেষে বাড়ি থেকে কর্মস্থল ফেরা পর্যন্ত বিগত বারো দিনের তথ্য তুলে ধরা হয়।

এতে দেখানো হয়, এ সময়ে ৩৭ জন শ্রমিক, ৭০ জন নারী, ২২জন , ৪২জন ছাত্র-, ৩ জন , ২জন , ৮জন আইন শৃংখলা রক্ষা বাহিনীর সদস্য, ৩জন নেতা, ৯শ’ জন যাত্রী ও পথচারি সড়ক দুর্ঘটনার হয়েছেন।

আর এসময়ে রেল পথে ট্রেনে কাটা পড়ে ১১জন, ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে ১জন, ট্রেন-যানবাহনের সংঘর্ষে ১টি, ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার ১টি ঘটনায় মোট ১৩জন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছেন।

একই সময়ে নৌ-পথে ২৪টি ছোটখাট বিচ্ছিন্ন দুর্ঘটনায় ১৬জন, ৫৯জন নিখোঁজ ও ২৭ জন আহত হয়েছেন।এবার একটু ভিন্ন প্রসঙ্গে যাই, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যমতে চলতি অর্থবছরে (২০১৮-১৯) সাময়িক হিসেবে মোট কথা বাংলাদেশে জন্য অনেক বড় এক রেকর্ড।

দেশের সড়ক গুলোতে কখনও আমার সন্তান, কখনও আপনার সন্তান বা কখনও আমিও সড়কে মারা যাবো। কখনও আমার মায়ের বুক খালি হবে, কখনও আপনার মায়ের বুক খালি হবে।সড়কে নিরাপত্তার দায়ত্বে থাকা আমাদের সবাইকে।