হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের অর্থ আত্মসাত, মন্ত্রণালয়ের নোটিশ!

ক্রাইম প্রতিদিন, সোহেল আলম : চাঁদপুরের গৃহকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোহেবুল্লাহ খানের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট কর্তৃক প্রদত্ত উপবৃত্তির অর্থ আত্মসাত এর অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

গৃহকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক মোঃ মফিজুল ইসলাম ভুইয়া কলেজের অধ্যক্ষ মোহেবুল্লাহ খানের বিরুদ্ধে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে একটি অভিযোগ দাখিল করেন। এ অভিযোগ শিক্ষা অধিদপ্তরের তদন্তে প্রমাণিত হয়।

অভিযোগে প্রভাষক মোঃ মফিজুল ইসলাম বলেন, গৃহকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ (প্রেষণে) মোহেবুল্লাহ খান প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট কর্তৃক প্রদত্ত স্নাতক(পাস) প্রথম বর্ষের ছাত্র-ছাত্রীদের উপবৃত্তির লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করেন।

শুধু টাকা আত্মসাতই নয়, সেসব শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফি বাবদ ৩’শ টাকা করে আদায় করেন ওই অধ্যক্ষ।

জানা যায়, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মোহেবুল্লাহ খান বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের একজন কর্মকর্তা। তিনি প্রেষণে গৃহকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন। বর্তমানে ওই কলেজের উপাধ্যক্ষ হিসেবে তার নাম এমপিওভুক্ত আছে। সরকারি কলেজের একজন শিক্ষক হওয়ার পরও এমপিও শিটে তার নাম থাকাটা আইনানুযায়ী অবৈধ।

তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী অধ্যক্ষ মোহেবুল্লাহ খানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় কেন তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে না সে বিষয়ে তাকে (মোহেবুল্লাহ খান) ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য বলা হয়েছে। এছাড়াও ২য় বারের মতো কেন ব্যবস্থা নেয়া হবেনা জানতে চেয়ে আবারো চিঠি দিয়েছেন মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব সৌরভ হোসাইন।

তবে অভিযোগের বিষয়ে একাধিক বার কলেজে গিয়েও তাকে পাওয়া যায় নি। ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বারটিতে কল দিলে ব্যস্ত দেখায়।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন