কেউ কারো নয়!

  • ক্রাইম প্রতিদিন ডেস্ক
  • ২০২০-০৬-০৯ ১৪:২২:২৬
ক্রাইম প্রতিদিন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের পর পৃথিবীর সব হৃদয়বিদারক দৃশ্যগুলো ফুটে উঠছে সমাজের সামনে। করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তির লাশ ছুয়েও দেখছেন স্বজনরা। অনেক ক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা বাহনীর সদস্যরা তাদের দাফন করছেন। অন্যদিকে অনেক স্থানে লাশ দাফনের ক্ষেত্রে বাধা দিচ্ছেন স্থানীয়রা। মৃত্যুব্যক্তির লাশ পড়ে থাকলেও করোনা সন্দেহে কেউ কাছে আসছেন না। এরকম ঘটনা প্রতিদিন বিভিন্ন স্থানে ঘটছে।

সম্প্রতি দিল্লিতে করোনায় মারা যাওয়া পিতার লাশ একাই দাফন করেন একমাত্র সন্তান। পাড়াপ্রতিবেশি কিংবা আত্মীয়স্বজন কেউ আসেনি। কোরআনের হাফেজ সন্তান পিতার লাশের দাফন ও কাফনের কাজ একাই সম্পন্ন করেন। করোনায় দেখিয়ে দিচ্ছে কেউ কারো নয়।

পরের ছবিতে দেখা যায় করোনাভাইরাস উপসর্গ নিয়ে ঢাকার মুগদা জেনারেল হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা করাতে আসা এক তরুণ সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে থাকে ঘন্টার পর ঘন্টা। জানা যায়, ওই তরুনের সঙ্গে আসা তার আপন বোন তাকে এই অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। পরে একজন ফটো সাংবাদিক তাকে পানি পান করান ও মাথায় পানি ঢালার তার জ্ঞান ফিরে আসে।

ঘটনার বিষয়ে ওই ফটো সাংবাদিক জানান, ‘প্রতিদিনের মতো করোনা পরিস্থিতির ছবি নিতে মুগদা হাসপাতালে যাই। বেলা সোয়া ১১টার দিকে গিয়ে দেখি হাসপাতালের লনে এক তরুণ পড়ে আছে। প্রথম দেখে মনে করেছি মৃত। পরে কাছে গিয়ে দেখি প্রাণ আছে। তখন পাশে বসে থাকা একজন বয়স্ক লোকের হাত থেকে পানির বোতল অনেকটা কেড়ে নিয়ে নিই। পরে ছেলেটাকে তুলে ধরে বসিয়ে মাথায় পানি দিই এবং পানি পান করাই’। এই দুটি ছবি ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। নেটিজেনদের প্রশংসা পাচ্ছেন হাফেজ সন্তান ও ফটো সাংবাদিক।

নিউজটি শেয়ার করুন


নিউজ সম্পর্কে মতামত লিখুন


 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ