ইন্টারনেটে করোনাভাইরাস নিয়ে যে ১০ বিষয়ে সার্চ করবেন না

  • ক্রাইম প্রতিদিন ডেস্ক
  • ২০২০-০৩-০৫ ১৭:২৫:২৩
image

প্রাণঘাতি করোনার প্রচণ্ড হানায় বিপর্যস্ত পুরো বিশ্ব। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। ভাইরাসটির কারণে এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ২৮৫ জনের প্রাণহানীর খবর পাওয়া গেছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯৫ হাজার ৩৮২ জন। এর মধ্যে চীনে মোট মৃত্যুর সংখ্যা তিন হাজার পেরিয়েছে।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৮০টি দেশে ও অঞ্চলে এ ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীকে চিহ্নিত করা গেছে। করোনাভাইরাস আতঙ্কে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জরুরি অবস্থা জারি করেছে।

যে কারণে রোগটি ও এর থেকে মুক্তির উপায় জানতে গুগল করছেন নেটিজেনরা।

এরমধ্যে অসংখ্য ভুল তথ্যের ছড়াছড়ি। আবার কিছু অসাধু ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান এই সংকটকে পুঁজি করে বিভিন্ন ভুয়া প্রতিষেধক, তথ্য দিয়ে নিজেদের আখের গুছিয়ে নিচ্ছে।

আসুন জেনে নিই করোনাভাইরাস বিষয়ে জানতে ইন্টারনেটে যে দশটি বিষয় লিখে সার্চ করবেন না -

১. প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস প্রতিষেধক বের হয়নি। তাও অনলাইন থেকে করোনা প্রতিষেধক এরকম কোনো মেডিসিন ক্রয় করা থেকে বিরত থাকুন।

২. প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এখনও কোনো ‘টেস্ট কিট’ বের হয়নি। তাই ভুয়া করোনাভাইরাস টেস্ট কিট থেকে দূরে থাকুন।

৩. অনলাইনে দেখা মাস্কের বিজ্ঞাপনের দিকে ঝুঁকবেন না। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কোনো স্পেশাল মাস্ক নেই, তাই এরকম বিজ্ঞাপন দেখলে এসব থেকে দূরে থাকুন।

৪. স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা প্রতিরোধে মাস্ক কখনোই সম্পূর্ণ নিরাপত্তা হিসেবে কাজ করে না। চোখ দিয়েও ঢুকতে পারে এ ভাইরাস। এর আকার এত ছোট যে এন৯৫ কিংবা সার্জিক্যাল মাস্কের ভেতর দিয়ে ভাইরাসটি প্রবেশে সক্ষম। তাই অনলাইনে এরকম বিষয় থেকে দূরে থাকুন।

৫. হোয়াটসঅ্যাপ কিংবা টিকটকসহ যেকোনো সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরে বিশ্বাস করবেন না।

৬. করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কোনো বিষয়ে ইউটিউব থেকে পরামর্শ নেবেন না।

৭. করোনাভাইরাসের উপসর্গ কেমন হবে এরকম কী ওয়ার্ড দিয়ে অনলাইনে সার্চ করবেন না।

৮. যাচাই বাছাই ছাড়া কোনো আর্টিকেল বা ভিডিও শেয়ার করা থেকে বিরত থাকুন।

৯. সূত্র ছাড়া সাধারণভাবে অনলাইনে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কিছু সার্চ করবেন না।

১০. ফিশিং ইমেইলের ফাঁদে পা দেবেন না।

 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ