নারীসহ ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার

  • ক্রাইম প্রতিদিন ডেস্ক
  • ২০২০-০৯-১৮ ০১:১৬:০৬
image

 সাভারের উলাইল, আশুলিয়ার পলাশবাড়ী ও ধামরাইয়ের ভাড়ারিয়া এলাকা থেকে আলাদা ঘটনায় অজ্ঞাতপরিচয় দুই নারীসহ ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ও বুধবার গভীর রাতে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।  

সাভার মডেল থানা-পুলিশ জানায়, সকালে সাভারের উলাইল এলাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক সংলগ্ন একটি ভাঙারি দোকানের সামনে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজিউর রহমান জানান, নিহত অজ্ঞাত পরিচয় ওই নারীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ওই নারীকে হত্যার পর রাতের আঁধারে এখানে ফেলে রেখে যাওয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। 

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার ধামরাইয়ের ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গোরস্থানের উত্তর পাশে একটি জলাশয়ে অজ্ঞাত এক পুরুষের লাশ ভাসতে দেখে নিজের ফেইসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেন ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন। 

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোখলেছুর রহমান বলেন, ভাড়াড়িয়া ইউনিয়নে একটি জলাশয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির লাশ ভেসে থাকার খবর পেয়েছি। তবে ঘটনাস্থলে পৌঁছে এ ব্যাপারে জানানো সম্ভব হবে।

অপরদিকে, বুধবার গভীর রাতে সাভারে আশুলিয়ার পলাশবাড়ী এলাকায় ভাড়া বাসার নিজ কক্ষ থেকে আরেক নারীর রহস্যজনক মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী সবুজ পলাতক রয়েছে বলে পুলিশ জানালেও বিস্তারিত পাওয়া যায়নি। 

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফরিদুল আলম জানান, স্থানীয়দের খবরে গভীর রাতে আশুলিয়ার পলাশবাড়ী এলাকা থেকে এক নারীর গলায় ওড়না প্যাঁচানো মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে ওই নারীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ছাড়া ঘটনার পর থেকে ওই নারীর স্বামী পরিচয়দানকারী সবুজ নামে এক ব্যক্তি পলাতক রয়েছে।