চারদিকে সারি সারি লাশ, পাশেই চলছে করোনা রোগীদের চিকিৎসা

  • ক্রাইম প্রতিদিন ডেস্ক
  • ২০২০-০৫-০৯ ১৫:৩৪:৩৭
ক্রাইম প্রতিদিন

ভারতের মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ধরা পড়লো ভয়াবহ দৃশ্য। পুরুষ ওয়ার্ডে একের পর এক মরদেহের সারি। পাশেই শুয়ে রয়েছেন করোনা আক্রান্ত রোগীরা। এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। প্রশ্নের মুখে পড়েছে মহারাষ্ট্রের সরকার।

একটি মোবাইল ফোনে তোলা ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, যেখানে হাসপাতালের শয্যায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা চলছে, তারই আশেপাশে এখানে ওখানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে রয়েছে বেশ কয়েকটি লাশ। ব্যাগের মধ্যে কোনও রকমে জড়ানো অবস্থায় ফেলে রাখা লাশগুলো সবই করোনা আক্রান্ত মানুষজনের।

মারা যাওয়ার পরও তাদের লাশ অন্যস্থানে না সরিয়ে হাসপাতালের মেঝেতে ফেলে রাখা হয়েছে, যা থেকে আরো মারাত্মক সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

ভয়ঙ্কর ওই ভিডিও ক্লিপটি মুম্বাইয়ের সিওন হাসপাতালের যা কি-না সেখানকার পৌরসভার নিয়ন্ত্রণে। কমপক্ষে ৭টি লাশ ওয়ার্ডে পড়ে থাকতে দেখা গেছে, আর তার পাশেই হাসপাতালের বেডে চিকিৎসা চলছে অন্য রোগীদের। কিছু রোগীর পরিবারের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত আছে। ভাবুন একবার, কী ভয়ঙ্কর ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা।

মহারাষ্ট্র সরকারের বিরোধী বিজেপির এক বিধায়ক নীতেশ রানে ওই ভয়ঙ্কর ভিডিওটি পোস্ট করে লেখেন, সিওন হাসপাতালে রোগীরা লাশের পাশেই ঘুমিয়ে আছেন! কী চূড়ান্ত গাফিলতির নিদর্শন ... এ কেমন প্রশাসন! খুব খুব লজ্জাজনক।

যদিও সিওন হাসপাতালের ডিন প্রমোদ ইঙ্গালে জানান, কভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে যারা মারা গেছেন তাদের স্বজনরা সেই লাশ নিতে নারাজ। এই কারণেই ওই লাশগুলো ওখানে ওভাবে ফেলে রাখা ছিল। আমরা এখন ওই লাশগুলো সরিয়ে নিয়েছি এবং বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি।

হাসপাতালের কর্মীরাও সাফাই গেয়েছেন, ওই লাশগুলো পরিবারের সম্মতির অপেক্ষায় ফেলে রাখা হয়েছিল।

এদিকে মহারাষ্ট্রে ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সন্ধান মিলেছে। সেখানে করোনা আক্রান্ত প্রায় ১৭ হাজার। মৃত ৭০০ ছুঁইছুঁই।

নিউজটি শেয়ার করুন


নিউজ সম্পর্কে মতামত লিখুন


 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ