করোনা ভাইরাস ও করণীয়!

  • ক্রাইম প্রতিদিন ডেস্ক
  • ২০২০-০২-১১ ০০:৫৯:৪৬
Crime Protidin, Bangla News, Crime News, Breaking News, Politics, Economies, National, International, Sports, Entertainment, Lifestyle, Tech, Education, Photo, Video

এটা খুবই উদ্বেগের বিষয় যে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। সত্যি বলতে কি বিশ্বজুড়ে আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। সরকার বলছে সব ধরনের প্রস্তুতি আছে। তবুও লোকজন শঙ্কায়। কোনোভাবেই যেন দেশে করেনাভাইরাসের সংক্রমণ হতে না পারে সে ব্যাপারে সর্বোচ্চ দৃষ্টি রাখতে হবে।

শনিবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৯ জন। এটিই এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ প্রাণহানির সংখ্যা। বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ৮১৩ জন। এর মধ্যে চীনের মূল ভূখণ্ড ও এর বাইরে মৃত্যু হয়েছে ৮১১ জনের। এছাড়া হংকং ও ফিলিপাইনে মারা গেছেন একজন করে।
 
রোববার চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জনিয়েছে, করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২০০২-০৩ সালে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া সার্সকেও (সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিনড্রোম) ছাড়িয়ে গেছে। সে সময় সার্স ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বের ২৪টিরও বেশি দেশে মোট ৭৭৪ জনের মৃত্যু হয়, আক্রান্ত হন ৮ হাজার ৯৮ জন।

শনিবার চীনে নতুন করে আরও ২ হাজার ৬৫৬ জন করোনাভাইরাস আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। ফলে দেশটির মূল ভূখণ্ডে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭ হাজার ১৯৮ জন। এদিন চীনে প্রথমবারের মতো কোনো বিদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল করোনাভাইরাসের উৎসস্থল উহানে এক মার্কিন ও এক জাপানি নাগরিক মারা গেছেন।

দেশে নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশের সকল আকাশ, স্থল, নৌ ও সমুদ্রবন্দরে আগত যাত্রীদের হেলথ স্ক্রিনিংয়ে সরকারি ঘোষণা দেয়া হলেও হাজার হাজার যাত্রীর স্ক্রিনিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক থার্মাল স্ক্যানার নেই। বর্তমানে সারাদেশের মধ্যে শুধুমাত্র হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তিনটি থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে যাত্রীদের স্ক্রিনিং হচ্ছে। এছাড়া অন্য সকল সীমান্তপথে হ্যান্ডহেল্ড ইনফ্রারেড থার্মোমিটারই ভরসা। এ অবস্থায় করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হবে। দেশের বিমানবন্দর, নদীবন্দরসহ সব প্রবেশ পথে সতর্ক পাহারা রাখতে হবে যে করোনাভাইরাস আক্রান্ত কেউ প্রবেশ করতে না পারে। তাছাড়া ভাইরাস ছড়ায় এমন কোনো কর্মকাণ্ডও হতে দেয়া যাবে না। লোকজনকেও সচেতন থাকতে হবে। বিশেষ করে স্বাস্থ্য বিভাগকে এ ব্যাপারে সর্বাত্মক প্রস্তুতি রাখতে হবে। যদি ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে তবে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা যেন পায় আক্রান্ত সেটি নিশ্চিত করতে হবে ।

 
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ